‘চম্পা’ নগরীর ‘চাকমা’ বনাম ‘চাম’ । (সংক্ষিপ্ত নোট- ইতিহাসের যুগে)

Print Friendly

‘চম্পা’ নগরীর ‘চাকমা’ বনাম ‘চাম’ । (সংক্ষিপ্ত নোট- ইতিহাসের যুগে) লেখকঃ- অমিত হিল

আমরা মানুষরুপী দুই চাকার জীবযান সবসময় রহস্য কিছু নিয়ে বেশি ব্যস্ত থাকি; মননশীলতাতে সবসময় কি যেন প্রশ্ন জাগে আর জানার জন্য ব্যস্ত হয়ে উঠে পড়ি । আমাদের চারপাশ নিয়ে জানার আকাংখা এবং রহস্য অত্যন্ত তীব্র এবং কৌতুহলে ভরপুর । মানুষ বেঁচে থাকার জন্য কিংবা নিজস্ব রাজনীতিক ভিত্তি দাড় করানোর জন্য বর্তমান বিশ্বে হাজার বছরের অতীতে ঘটে যাওয়া ইতিহাসের পিছনে ছুঁটে যাচ্ছে কেননা অতীতকে নতুনভাবে সোনালীক্ষণে নিয়ে আসতে পারলে মানুষের যেন তৃপ্তিস্বাদ জন্মে আর বেঁচে থাকা সুখদায়ক হয়ে উঠে । ঐতিহ্যগতভাবে ইহা বিশ্বাস করা হয় যে, কোন একসময় ধ্বংসাত্মক যুদ্ধের ক্ষতির সম্মুখীন হয়ে চাকমাদের স্ব-বাসভূম ‘চম্পা’ নগর কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে আর দিকবিদিক হয়ে সবাই যে -যে দিকে পারে ছিটকে পড়ে বেঁচে থাকার তাগিদে -এমনই গল্পের কাহিনী জোৎস্নারাতে দাদুর পাশে বসে শুনতাম -ভালো লাগতো; আর বলে উঠতাম ইস্ এখন ও যদি আমাদের তেমন স্বাধীন রাজ্য থাকতো কতো না ভালো হতো ? নিজের চাকমা ভাষাতে লিখতে-পড়তে পারতাম । কলেজে পড়াকালীন বেশ কয়েকটি বই ‘চাকমাদের’ ইতিহাস নিয়ে লেখা পড়েছি কিন্তু সেসব বই সহজসরল মনকে শান্তির চেয়ে বরং জটিল করে দিয়েছিল । দাদু’র কথার সাথে যেসব কল্পনা করেছি সবই রহস্যজনক । একসময় মনোনিবিষ্ট হই চাকমাদের ইতিহাস নিয়ে জানার । তাই বুদ্ধ ধর্মে বর্ণিত চম্পা নগরের কথা পড়েছি -পড়েছি এর ভৌগলিক এবং অধিবাসীদের স্বভাব-সংষ্কৃতি সম্পর্কে । চাকমাদের অনেকেই মনে করেন চাকমারা শাক্য জাতি থেকে আগত -যা আমার ও একসময় মনে হতো কিন্তু নেপালের শাক্য বংশীয়দের সাথে আমাদের তেমন কোনটা মিল নেই । তাই সেই সম্ভাবনাকে তেমন গুরুত্ব দিয়ে মনে স্থান দিই নি

 

 

এরপর কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড এবং ভিয়েতনামের ইতিহাস পড়তে গিয়ে হঠাৎ এক কঠিন মানব সভ্যতার সামনি-সামনি হই; দাদুর কথাগুলো গল্প হলেও যেন সে সভ্যতার মানুষেরই কথা -যে না দেখে না পড়ে বলে দিয়েছিলেন সেসব শুধু গল্পের আকারে আর অন্যদিকে চাকমা ইতিহাসের অনেক লেখক খুঁজে নিয়েছিলেন শাক্য বংশের সাথে চাকমাদের এক গভীর বন্ধন । বর্তমান ভিয়েতনামের আদিপুরুষরা ছিলেন এক স্বাধীন এবং সুবর্ণময়ী অতীত ‘চম্পা’ নগরীর বাসিন্দার -যে নগর এক সময় খ্যাতির চূড়ায় দাঁড়িয়েছিল বিভিন্ন শিল্প-কৌশলে; পুরাবিদরা আদৌ ছুঁটে যান সে অতীত ‘চম্পা’র নগরে শিল্প-কলা সম্পর্কে গবেষণা করার প্রত্যয়ে; যে নগর আদৌ বহন করে যাচ্ছে এর সোনালী অতীতকে -যার সাক্ষী এর হাজার বছরের পুরণো মূর্তি এবং মন্দিরগুলো । ময়নামতি -পাহাড়পুর -মহাস্থানগড় যেভাবে মনে করিয়ে দেই যে কোন একসময় বাংলার বাসভূমে বৌদ্ধ ধর্মের সোনালী অতীত ছিল -এর রাজা পালেরা ছিলেন দয়ালু এবং পরমসহিঞ্চু । ঠিক একইভাবে ভিয়েতনামের সেই পুরাতন ‘চম্পা’ নগরে রাজা ‘বিজয়ে’র নাম ইতিহাসে স্মরণ করা হচ্ছে -যেখানে হিন্দু থেকে বৌদ্ধ ধর্মের এক স্বর্ণ সভ্যতা ঘটেছিল ঠিক ৭-১৩ শতাব্দীর দিকে যদিও এর অনেক পুরাতন থেকে এদের ইতিহাস বিদ্যমান -ঠিক ১৭২০ এর দিকে এদের সম্পূর্ণ বিনাশ ঘটে ভিয়েতনামীদের আগ্রাসনে । এরপর অনেকে ছুঁটে যান কম্বোডিয়ার দিকে যেখানে বর্তমানে ২লক্ষের অধিক সে চম্পা নগরীর মানুষের বসবাস রয়েছে । পরিবেশ -পরিস্থিতির আবর্তে তারা ও ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হতে বাধ্য হন । আর অনেকেই পালিয়ে যান চীনের দিকে -অনেকে ইন্দোনেশিয়া কিংবা বার্মার দিকে । সেই অতীত ‘চম্পা’ নগরের অধিবাসীদের বলা হতো ‘চাম’ নামে -যে নামটি দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াতে আদৌ খুবই জনপ্রিয় এবং ইতিহাসখ্যাত সংখ্যালঘু জাতি নামে ।

 

 

তথ্যসূত্র এবং নতুনভাবে পড়ার জন্য :

http://nccur.lib.nccu.edu.tw/bitstream/140.119/43770/1/relig4.pdf

http://www.reninc.org/PDFS/ChamBook.pdf

http://pnclink.org/annual/annual2003/programe/presenpdf/110931.pdf

http://www.ari.nus.edu.sg/docs/wps/wps03_003.pdf

http://i-epistemology.net/attachments/912_ajiss23-3-stripped%20-%20Forum%20-%20The%20Cham%20Bani%20of%20Vietnam.pdf

http://claudia.seise.de/Publikationen__Publications/Cham_in_Cambodia.pdf

http://www.tripwolf.com/en/vietnam/info/background-history-of-the-non-viet-civilizations-champa-ad-200-1720

http://www.chinahistoryforum.com/index.php?/topic/13784-champa-kingdom-and-cham-people/

http://pnclink.org/annual/annual2003/programe/presenpdf/110931.pdf

http://www.viettouch.com/champa/champa_history.html

http://en.cnki.com.cn/Article_en/CJFDTOTAL-JFJW200104028.htm

http://www.ancientsites.com/aw/Article/549713

http://en.wikipedia.org/wiki/Champa

 

published: http://www.sonarbangladesh.com/blog/amithill/32435

Share This Post

6 Responses to "‘চম্পা’ নগরীর ‘চাকমা’ বনাম ‘চাম’ । (সংক্ষিপ্ত নোট- ইতিহাসের যুগে)"

  1. জানার কোন শেষ নাই; এ আজানাকে জানার জন্য অমিত হিল এবং হিলবিডি’র এডমিনদের অসংখ্য ধন্যবাদ জানাই। আমাদের আরো জানতে হবে; পড়তে হবে অনেক কিছু; জানার শেষ নাই…… চলুক।

    Reply
  2. অমিত বাবু আপনার লেখাটা পড়ে একটা অজানা তথ্য জানতে পারলাম, আপনাকে অনেক অনেক ধন্যবাদ।এই চম্পা নগরীটা ভিয়েতনামের কোন জায়গায় বা কোন প্রোভিনসে একটু বলবেন কি?(যদি জানা থাকে) আমার খুব ইচ্ছে ঘুরে দেখার,যদি আপনি সঠিক তথ্য দিতে পারেন আমি অবশ্যই একদিন ঘুরে আসবো।

    Reply
  3. বেক্কুনারে মর ঝু! দাদার লেগায়ান পারিনেই গমলাগিলো. মুই মানেগরং বার্মাত Arakan ত Lappangung, Lemro গাং পারত যে চাঙমা যাদ ভেইযুন আগন তারায়িদু জেনেই পুঝোর গালেগই আমার বিদিজেয়া বিজগর কদা হয়ত কিজু জানিপারিবং. তুমি Youtube.com/Chakma village Lappangung in Arakan Burma বত জেনেই Video চেই পারিবা.

    Reply

Post Comment

Please Answer.. * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.