মা (বঙ্গানুবাদ)

Print Friendly

হে অনন্ত গুণাধারী স্নেহময়ী জন্মদাত্রী

তোমার অপ্রমেয় স্নেহ মমতার মাঝে

আজ আমি বেঁচে আছি এ বিশ্ব মাঝে,

দশমাস দশদিন রেখেছিলে নিশি দিন

তোমার কোমল জঠরে,

কত কষ্টে এ জীবন দানিয়াছ মোরে।

 

তোমার বুকের অমৃত সুধা মুখের মধুময় হাসি

করিয়া পান সেবন মাগো নির্ভয়ে বেঁচে আছি,

কত আদরে স্নেহ মমতায়, অনন্ত মৈত্রী করুণা মুদিতায়;

রেখেছ সযতনে তোমার কোমল কোলে্

একবিন্দু দুঃখ-কষ্ট পেতে নাহি দিলে ।

 

নিষ্কর্ম দিবস হয়ে বিনিদ্র রজনী

কাটিয়েছ আমার তরে ওগো জননী,

চোখে ঘুম, উদরে অন্ন, ওষ্ঠে ঠোঁটে পানি

সবকিছু ত্যাজিয়া মাগো পালি’ছ অমায় জানি ।

কত কষ্ট আমার তরে পেয়েছ যে তুমি

পারবনা শোধরাতে সেই ঋণ আমি,

মাগো তুমি প্রাণের খনি অমার দু’চোখের মণি

তোমার স্নেহ মমতার আলোয় বিশ্ব জগৎ দেখছি আমি ।

 

শ্রদ্ধা ভরে মাগো তাই জানাই বন্দনা

আশর্বিাদে মুছে যাক আমার সকল যাতনা ।

তোমার শিক্ষা-দীক্ষায় সকল নির্দেশনায়

পেয়েছি সদ্‌শিক্ষা সদ্‌গুণ মান ও জ্ঞান ।

মাগো তাই তুমি শ্রেষ্ঠ এ জগৎ মাঝারে

তোমার স্থান আছে জানি বিধাতার পরে ।

স্নেহময়ী মাগো তোমার মায়া মমতায়

সুখের হোক এ জীবন তোমার পদ ছায়ায় ।

অজস্র প্রণাম জানাই তোমারি চরণে

তুমি বিনে আপন জন কে আছে এ ভুবনে ?

Share This Post

Post Comment

Please Answer.. * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.