আদিবাসী নারী ***সুদীপ্ত চাকমা মিকাডো***

Print Friendly

সবার পরিচয়ে আমি একজন নারী
সব কিছু করতে নাই পারি
সব কিছুর উপর আমি এক আদিবাসী নারী
রয়েছে কিছু একসট্রা অধিনারী

চলনে বলনে সবার চেয়ে ভারী
আমি এক আদিবাসী নারী
স্বপ্ন ভাঙি আর বুনি
চেয়ে দেখি পাবত্যের ভূমি
সবার মত আছে আমার ও কিছু দাবী
শুধু বইতে চায় না সিন্দুকের চাবি।

কিছু খবর কি আসছে বাতাসে ?
পাহাড়ের গাছ আর বাঁশে
মন বয়ে চলতে চায় ছড়ার নালায়
স্বপ্ন ভাঙে কিছু ভালবাসায়
মন জানতে চায়
কি এমন আছে এই বিশ্বটায় ?

পাহাড়ের মাঝ থেকে শুনি প্রতিধ্বনি
নারী বলতেই কি শুধু তুমি আমি ?
পাখির কিলবিল শব্দের গান
চোখ ভরে দেখি শুধু ক্ষেত ভরা ধান

আদিবাসী উপজাতি নাকি নৃ গোষ্টী
এ নিয়ে আছে আমার তীক্ষ্ণ দৃষ্টি
মুক্ত আকাশে ভাসতে মন চায়
চোখ মেলে দেখি যতদূর দৃষ্টি যায়
পাহাড়ের গহীনে আমার বসবাস
নেই তথ্যের মূল সমাহার
জানতে চায় আমি আমার অধিকার
পেতে চায় আমি আমার মৌলিক অধিকার

পেয়ে হারানো ভয় তাড়া করে ফিরে সব সময়
কে যে কি কেড়ে লয় ?
আজ হারাতে হারাতে শুধু
নিজেকে নিয়ে ভাবতেই বসি
পেয়ে ও কিছু হারিয়েছি
পুঁছে রেখেছি আমার আর্থি
কিই বা আছে আমার প্রার্থী ?

র্পাবত্য ভূমি ভরে আছে নাঁচ আর গানে
আর কেউ বা আছে দাবীর সংগ্রামে
শংকিত আমি প্রতিনিয়ত
বিচরণ আমার নিদিষ্ট
জীবনের চাওয়া পাওয়ার যুক্তি
শিক্ষায় মিলবে মুক্তি
নারী বলে কি নেই মত প্রকাশের অধিকার ?
কেমনে আসবে তবে আমাদের স্বাধিকার ?
চেহারায় যেন থাকতে হবে নারীর অবয়ব
আচরণে যেন থাকবে হবে নারীর অবয়ব
তবেই যেন নারী হওয়া সম্ভব !

যুগের আমুল পরিবর্তনে
নারীরা ও আজ নেই পিছনে
আমি পাহাড়ের আদিবাসী নারী
সমাজের সবকিছুর উন্নয়নে আমরা নারীরাও অংশীদারী।

Share This Post

Post Comment

Please Answer.. * Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.